গর্ভপাতের পর বিয়ে করতে অস্বীকার, অভিনেত্রীর আত্মহত্যা

০৩ জুন, ২০২০ | aparadhsutra.com


 অপরাধসূত্র ডেস্ক :  ভারতে ফের আত্মহত্যা করলেন এক টেলিভিশন অভিনেত্রী। ভালোবাসার সম্পর্কে প্রতারিত হয়ে আত্মহত্যা করলেন কন্নড় অভিনেত্রী চন্দনা।

আত্মহত্যার পুরো দৃশ্য নিজের মোবাইলে শ্যুট করেন চন্দনা। এরপর সেই ভিডিও বন্ধুকে পাঠিয়ে দেন। বন্ধুর পাশাপাশি নিজের বাবা-মাকেও ওই ভিডিও পাঠান চন্দনা। কিন্তু ভিডিও পেয়ে যতক্ষণে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলো, ততক্ষণে সব শেষ।

জানা গেছে, কন্নড় অভিনেত্রী চন্দনা বেশ কয়েক বছর ধরে দিনেশ নামে এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান। বছর ২৯-এর চন্দনা যাতে দিনেশের কাছ থেকে সরে আসেন, তার জন্য অভিনেত্রীর বাবা-মা বার বার উদ্যোগী হন কিন্তু প্রত্যেকবারই তাঁদের চেষ্টা বিফলে যায়। দিনেশ এর আগেও বেশ কয়েকজনের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে তাঁদের প্রতারিত করেছিলো। চন্দনাকে বার বার বোঝানো সত্ত্বেও তিনি মানতে পারেননি। ফলে বাবা-মায়ের নিষেধ সত্ত্বেও দিনেশের সঙ্গে সম্পর্ক অটুট তাকে চন্দনার।

এসবের মাঝে হঠাত করেই অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন চন্দনা কিন্তু জোর করে তাঁকে গর্ভপাত করানো হয় বলে অভিযোগ। দিনেশই তাঁকে বাধ্য করেন গর্ভপাতের জন্য। গর্ভপাতের পর চন্দনাকে বিয়ে করতেও অস্বীকার করেন দিনেশ। নিজের সুইসাইড ভিডিওতে এমনই দাবি করেন অভিনেত্রী। চন্দনাকে বিয়ে করবেন না বলে জানানোর পরই তিনি আর সহ্য করতে পারেননি। বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেন বলে খবর।

চন্দনার মৃত্যুর পর পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হয়। পুলিশ দিনেশের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে।



  বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Aparadh Sutra

Subscribe Me

নামাজের সময়সূচি

শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০
ফজর ৪:২৬
জোহর ১১:৫৬
আসর ৪:৪১
মাগরিব ৬:০৯
ইশা ৭:২০
সূর্যাস্ত : ৬:০৯সূর্যোদয় : ৫:৪৩

শিরোনামঃ

♦ করোনা মোকাবেলায় দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী ♦ আইন অনুযায়ী নূরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ♦ বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ উপলক্ষে কর্মসূচি গ্রহণ ♦ ফের লকডাউন নিয়ে কী ভাবছে সরকার জানালেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব ♦ নেপালকে করোনার চিকিৎসা সামগ্রী দিল বাংলাদেশ ♦ নুরকে আইনি সহায়তা দেওয়ার আশ্বাস ড. কামালের ♦ মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনার কারণ বের হবে: প্রধানমন্ত্রী ♦ অস্ত্র মামলায় পাপিয়া দম্পতির বিরুদ্ধে আরও ৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ ♦ স্কুল না খুললে এ বছর প্রাথমিকে পরীক্ষা হবে না ♦ ইউএনও ওয়াহিদার অবস্থা স্থিতিশীল: মেডিকেল বোর্ড